মার্কিন প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন বলেছেন, ২০১৫ সালে ইরানের সঙ্গে পরমাণু সমঝোতায় স্বাক্ষরকারী দেশগুলোর সঙ্গে আবার আলোচনায় বসতে তার দেশ প্রস্তুত রয়েছে। তার পূর্বসুরি ডোনাল্ড ট্রাম্প ওই সমঝোতা থেকে একতরফাভাবে বেরিয়ে যাওয়ার প্রায় তিন বছর পর বাইডেন এ ঘোষণা দিলেন।

শুক্রবার বার্ষিক মিউনিখ নিরাপত্তা সম্মেলনে ওয়াশিংটন থেকে ভিডিও লিঙ্কের মাধ্যমে যুক্ত হয়ে এক বক্তৃতায় বাইডেন তার প্রশাসনের এ প্রস্তুতির কথা জানান। মার্কিন প্রেসিডেন্ট বলেন, ইরান সংক্রান্ত পাঁচ যোগ এক গ্রুপের সঙ্গে আবার আলোচনায় বসতে তার প্রশাসন প্রস্তুত রয়েছে।

জার্মানি এবং জাতিসংঘের পাঁচ স্থায়ী সদস্য দেশ আমেরিকা, ব্রিটেন, ফ্রান্স, চীন ও রাশিয়া ইরানের সঙ্গে পরমাণু সমঝোতা সই করেছিল বলে এসব দেশকে পাঁচ যোগ এক গ্রুপ বলে অভিহিত করা হয়।

পরমাণু সমঝোতাকে পুনরুজ্জীবিত করার লক্ষ্যে এ সংক্রান্ত আলোচনায় যোগ দেওয়ার প্রস্তুতি ঘোষণা করলেও এ ব্যাপারে বিস্তারিত কোনও দিক-নির্দেশনা বা রোড-ম্যাপ তুলে ধরতে ব্যর্থ হন জো বাইডেন।

২০১৮ সালের মে মাসে ট্রাম্প এই সমঝোতা থেকে আমেরিকাকে বের করে নেওয়ার পর থেকে এই আন্তর্জাতিক চুক্তির ভবিষ্যত নিয়ে অনিশ্চয়তা দেখা দেয়। কারণ, ইউরোপীয় দেশগুলো আমেরিকাকে ছাড়াই এটি বাস্তবায়ন করবে বলে বারবার তেহরানকে প্রতিশ্রুতি দিলেও তারা বাস্তবে তা করতে ব্যর্থ হয়।

ইরানও এক বছর পর্যন্ত ধৈর্য ধরে ২০১৯ সাল থেকে পরমাণু সমঝোতায় দেওয়া নিজের প্রতিশ্রুতি থেকে ধীরে ধীরে সরে আসতে শুরু করে।

সম্প্রতি বাইডেন তার নির্বাচনি প্রতিশ্রুতি থেকে সরে গিয়ে ইরানকে আগে পরমাণু সমঝোতায় পুরোপুরি ফিরে আসার আহ্বান জানান। এদিকে তেহরানও সাফ জানিয়ে দিয়েছে, আমেরিকা তেহরানের ওপর থেকে কার্যকরভাবে নিষেধাজ্ঞা পুরোপুরি তুলে না নেওয়া পর্যন্ত তার পক্ষে এই সমঝোতা বাস্তবায়নের কাজে পুরোপুরি ফিরে আসা সম্ভব নয়। প্রেসিডেন্ট রুহানি অবশ্য একথাও বলেছেন, নিষেধাজ্ঞা প্রত্যাহার করা হলে দ্রুততম সময়ের মধ্যে তার দেশ পরমাণু সমঝোতায় পুরোপুরি ফিরে আসবে।

 

আমাদের ফেইসবুক Link : ট্রাস্ট নিউজ ২৪

By Desk