ফেনীতে ত্রিশ ফুট দেয়াল জুড়ে ধর্ষণ বিরোধী প্রতিবাদ ও সচেতনতামূলক গ্রাফিতি অঙ্কন করেছেন এক শিক্ষার্থী।  শহরের পুরাতন রেজিস্ট্রি অফিস সংলগ্ন ফেনী লায়ন্স কার্যালয়ের সামনে ৩০ ফুট দেওয়াল জুড়ে গ্রাফিতি অঙ্কন করা হয়।

ঢাবি শিক্ষার্থী ও ফেনী মুহুরী লিও ক্লাবের প্রেসিডেন্ট তাহসিন সোবহান বলেন, ঢাকা আর্ট ইন্সটিটিউটের শিক্ষার্থী ও ফেনী মুহুরী লিও ক্লাবের সদস্য লিও তানিয়া ফারাবী তিশা ত্রিশ ফুট দেওয়াল জুড়ে ধর্ষণ বিরোধী প্রতিবাদ ও সচেতনতামূলক গ্রাফিতি অঙ্কন করেছেন। দেওয়ালের বিভিন্ন অংশে নারীর প্রতি সমাজের দৃষ্টিভঙ্গি, নারীদের প্রতি সহিংসতা, নারীদের প্রতিবাদের চিত্র ও আত্মরক্ষার মোট ৫টি শিল্পকর্ম অঙ্কন (গ্রাফিতি) করা হয়।

চিত্র শিল্পী তানিয়া ফারাবী তিশা বলেন, করোনার লকডাউনের কারনে ঢাকা আর্ট ইনস্টিটিউট বন্ধ রয়েছে। সে সুবাধে ঢাকা ছেড়ে ফেনী বাসায় অবস্থান করা হচ্ছে। ফেনী মুহুরী লিও ক্লাবের প্রেসিডেন্টের অনুরোধে সপ্তাহ খানেক সময় নিয়ে ত্রিশ ফুট দেওয়াল জুড়ে ধর্ষণ বিরোধী প্রতিবাদ ও সচেতনতামূলক গ্রাফিতি অঙ্কন করা হয়েছে।

তিশা আরো বলেন, শুধু সহিংসতার চিত্র নয়, বরং এর প্রতিবাদ এবং আত্মরক্ষার কৌশলও ছিলো এই শিল্পকর্মের উদ্দেশ্য। গ্রাফিতি অঙ্কনে তাকে ফারহান ফুয়াদ আহমেদ ও ফজলে রাব্বী চৌধুরী নামে দু’জন সহায়তা করেছে।

ফেনী পৌরসভার সাবেক প্যানেল মেয়র ও লায়ন্স ক্লাব ইন্টারন্যাশনাল’র রিজিয়ন চেয়ারপার্সন লায়ন ওমর ফারুক ভূঁইয়া বেলাল জানান, দেশে ধর্ষণ ও নারী নির্যাতন বেড়ে গেছে।

মানুষকে সচেতন করতে শিক্ষার্থীরা যে উদ্যোগ নিয়েছে তা সাধুবাদ পাওয়ার যোগ্য। তিনি আশা করছেন, পুরাতন রেজিস্ট্রি অফিস সংলগ্ন রোডের পাশাপাশি ভবিষ্যতে শহরের বিভিন্ন দেওয়ালে সচেতনতামূলক গ্রাফিতি অঙ্কন করবে শিক্ষার্থীরা। প্রয়োজনে তাদের সহযোগীতা করা হবে।

প্রসঙ্গত, করোনার ছুটিতে চলতি বছরের ফেব্রুয়ারি ও মার্চ মাসে ফেনীর একদল তরুণ চিত্রশিল্পী তাদের শিল্পকর্মে মাধ্যমে শহরের বিভিন্ন অলিগলির দেওয়াল রাঙ্গিয়ে ছিলো।

 

আমাদের ফেইসবুক Link : ট্রাস্ট নিউজ ২৪

By Desk