করোনা সংক্রমণ বেড়ে যাওয়ায় বাংলাদেশ, পাকিস্তান, কেনিয়া ও ফিলিপাইনের নাগরিকদের যুক্তরাজ্যে প্রবেশ নিষিদ্ধ হতে যাচ্ছে। আজ শুক্রবার বিবিসি বাংলার এক প্রতিবেদনে এ তথ্য জানানো হয়েছে।

প্রতিবেদনে বলা হয়, ৯ এপ্রিল থেকে এই নিষেধাজ্ঞা কার্যকর হবে।
তার আগের ১০ দিনে যেসব যাত্রী এই দেশগুলো থেকে যাত্রা শুরু করেছেন, কিংবা ট্রানজিট করেছেন, তাঁদের যুক্তরাজ্যে ঢুকতে দেওয়া হবে না বলে যুক্তরাজ্য সরকারের পরিবহন মন্ত্রণালয়ের ওয়েবসাইটে জানানো হয়েছে।

যুক্তরাজ্যে টিকাদান কর্মসূচি পুরোদমে চলছে। এরই মধ্যে করোনাভাইরাসের নতুন ধরন যাতে সে দেশে ঢুকতে না পারে, সে জন্যই এই পদক্ষেপ নেওয়া হয়েছে বলে ওয়েবসাইটে জানানো হয়।

নির্দেশনায় বলা হয়েছে, ৯ এপ্রিল শুক্রবার ভোর চারটা থেকে ফিলিপাইন, পাকিস্তান, কেনিয়া ও বাংলাদেশের নাম নিষিদ্ধ দেশের লাল তালিকায় অন্তর্ভুক্ত করা হবে।
এই তালিকায় মোট ৩৯টি দেশের নাম রয়েছে।

নিষেধাজ্ঞার নির্দেশনাটি ৯ এপ্রিল থেকে কার্যকর হলেও হিসাব করা হবে তার আগের ১০ দিন থেকে।

এই সময়ে যেসব বাংলাদেশি যাত্রা শুরু করবেন কিংবা যেসব যাত্রী বাংলাদেশসহ ওই তিন দেশে ট্রানজিট করবেন, তাঁদের যুক্তরাজ্যের যেকোনো বন্দরে ঢুকতে দেওয়া হবে না।

তবে ওই ওয়েবসাইটে বলা হয়, ব্রিটিশ কিংবা আইরিশ পাসপোর্টধারী যাত্রী এবং যাঁদের ব্রিটেনে বসবাসের অনুমতি রয়েছে, তাঁরা এই নিষেধাজ্ঞার আওতায় পড়ছেন না।
তবে তাঁদের সরকার অনুমোদিত কোয়ারেন্টিন সেন্টারে ১০ দিন থাকতে হবে।
বিবিসি জানিয়েছে, বাংলাদেশ বা অন্য তিনটি দেশ থেকে সরাসরি ফ্লাইট বাতিলের কোনো পরিকল্পনা এখন পর্যন্ত নেই বলে যুক্তরাজ্য সরকারের পক্ষ থেকে বলা হয়েছে।

 

আমাদের ফেইসবুক Link : ট্রাস্ট নিউজ ২৪

By Desk