কুমিল্লার নাঙ্গলকোটে মো. সায়েদুল হক (২৬) নামক মাদকাসক্ত এক যুবক মাকে কুপিয়ে এবং ভাবিকে গলা কেটে হত্যা করেছে।

সোমবার দুপুর দেড়টার দিকে উপজেলার আদ্রা দক্ষিণ ইউনিয়নের পুজকরা গ্রামে এ চাঞ্চল্যকর ঘটনা ঘটে। নিহতের মধ্যে ঘাতক সায়েদুল হকের মা নুরজাহান বেগম (৬০) ও তার ভাবি নুরুন্নাহার (৪৫) রয়েছেন।

নিহত নুরুন্নাহারের স্বামী আজিজুল হকের অভিযোগ সূত্রে জানা যায়, পারিবারিক বিরোধকে কেন্দ্র করে দীর্ঘদিন থেকে তার সৎ ভাইদের সাথে তাদের বিরোধ চলে আসছিল।

বিষয়টিকে কেন্দ্র করে ঘাতক সায়েদুল হক পূর্ব পরিকল্পনা মোতাবেক তাদের পরিবারের উপর হামলা চালাতে চাইলে মা নুরজাহান বেগম তাতে বাধা দেয়। এতে সে ক্ষুব্ধ হয়ে মুহুর্তের মধ্যে মাকে কুপিয়ে হত্যা করে ভাবি নুরুন্নাহারের ঘরে প্রবেশ করে তাদের উপর হামলা চালায়। একপর্যায়ে ঘাতক সায়েদুল হক ভাবি নুরুন্নাহারকে গলা কেটে হত্যা করে। ওই ঘাতকের হামলায় আরো ৩/৪ জন আহত হন।

খবর পেয়ে তাৎক্ষণিক পুলিশ ঘটনাস্থল গিয়ে ঘাতক সায়েদুল হককে আটক করেছে।

নাঙ্গলকোট থানা পুলিশের অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মো. বখতিয়ার উদ্দিন চৌধুরী বিষয়টি নিশ্চিত করে জানান, মরদেহ দু’টি উদ্ধার করে থানায় আনা হয়েছে। ঘাতককে ছুরিসহ আটক করা হয়েছে। মরদেহ দুটি ময়নাতদন্তের জন্য কুমিল্লা মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল পাঠানোর প্রস্তুতি চলছে।

 

আমাদের ফেইসবুক Link :  ট্রাস্ট নিউজ ২৪

By Desk