সকল জল্পনা কল্পনার অবসান শেষে সাড়ে ৩ মাস বন্ধ থাকার পর ভারত থেকে দিনাজপুরের হিলি স্থলবন্দর দিয়ে পেঁয়াজ আমদানি আবারও শুরু হয়েছে। গত ১৪ সেপ্টেম্বর ভারত সরকার অভ্যান্তরীণ সংকট খোড়া অজুহাত দেখিয়ে বাংলাদেশে পেঁয়াজ রপ্তানি বন্ধ করে দেয়। আজ শনিবার (২ জানুয়ারি) বিকেল সাড়ে ৩ টার দিকে ভারত থেকে হিলি চেকপোস্ট দিয়ে পেঁয়াজ বোঝায় ভারতীয় ট্রাক হিলি স্থলবন্দরে প্রবেশ করে। বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন হিলি স্থলবন্দরের আমদানি-রপ্তানি কারক গ্রুপের সভাপতি হারুন উর রশিদ হারুন।

দিনাজপুর হিলি স্থলবন্দর দিয়ে পেঁয়াজ আমদানি

তিনি জানান, সাড়ে ৩ মাস হিলি বন্দরে পেঁয়াজ আমদানি বন্ধ থাকার পর আজ বিকেল থেকে আবার পেঁয়াজ আমদানি শুরু হয়েছে। এদিকে গত ৩ দিনে হিলি স্থলবন্দরের পাইকারি ও খুচরা বাজারে দেশীয় পেঁয়াজ প্রতি কেজি বিক্রি হচ্ছে ৩০ থেকে ৩৩ টাকা। পেঁয়াজ আমদানিকারক মাহফুজার রহমান বাবু জানান, আজ আমার এক ট্রাক (১৯ টন) পেঁয়াজ আমদানি করা হয়েছে। ২৫০ ডলারে ভারত থেকে পেঁয়াজ ক্রয় করা হয়েছে। দেশের বাজারে তা ২৩ থেকে ২৫ টাকা কেজি দরে বিক্রি করতে হবে। আমদানি কারকেরা বলছেন, ভারত থেকে পেঁয়াজ আমদানিতে ডলার মুল্য বেড়ে গেলে অনেক আমদানিকার দের ক্ষতির মুখে পড়তে হবে।

উল্লেখ্য, ভারত সরকার গত ১৪ সেপ্টেবম্বর কোন পূর্বের ঘোষনা না দিয়ে অভ্যন্তরীণ সংকট ও মূল্যবৃদ্ধির অজুহাত দেখিয়ে বাংলাদেশে পেঁয়াজ রপ্তানি বন্ধ করে দেয়। ফলে দেশে পেঁয়াজের দামে অস্থিরতা দেখা দিলে সে সময় থেকে দাম নিয়ন্ত্রণে রাখতে হিলি স্থলবন্দরের ব্যবসায়ীরা দ্রুত মিয়ানমার, পাকিস্তান, মিশর ও চীন থেকে পেঁয়াজ আমদানি চলমান রেখেছে। এরফলে বাজারে বর্তমানে পেঁয়াজের স্বাভাবিক দাম ফিরে এসেছে। এরই মাঝে আজ আবারও ভারত থেকে হিলি বন্দরে পেঁয়াজ রপ্তানি শুরু করেছে।

আমাদের ফেইসবুক Link: ট্রাস্টনিউজ২৪