এক বছর পর সাকিব আগের থেকে স্ট্রং হয়ে ফিরবে

সাকিব আল হাসানকে যে শাস্তি দিয়েছে আন্তর্জাতিক ক্রিকেট কাউন্সিল তিনি তা মেনে নিয়েছেন । সবার সমর্থন থাকলে এই সময়ের মধ্যে আগের থেকে শক্তিশালী হয়ে ফিরবেন ।

এক বছর পর সাকিব আগের থেকে স্ট্রং হয়ে ফিরবে
এক বছর পর সাকিব আগের থেকে স্ট্রং হয়ে ফিরবে

সাকিব আল হাসানকে যে শাস্তি দিয়েছে আন্তর্জাতিক ক্রিকেট কাউন্সিল তিনি তা মেনে নিয়েছেন । সবার সমর্থন থাকলে এই সময়ের মধ্যে আগের থেকে শক্তিশালী হয়ে ফিরবেন । আইসিসির রায় ঘোষণার পর (২৯ অক্টোবর) সন্ধ্যায় বিসিবি সভাপতি নাজমুল হাসান পাপনের সঙ্গে সংবাদ সম্মেলনে এসে লিখিত বক্তব্যে এ কথা বলেন সাকিব ।

দুর্নীতির বিরুদ্ধে আইসিসির যে অবস্থান এবং সেজন্য আমার বিরুদ্ধে যে শাস্তি তা আমি মাথা পেতে নিচ্ছি বলে জানিয়েছেন তিনি। নিষেধাজ্ঞা শেষে আগের থেকে শক্তিশালী হয়ে ফিরব সবার সমর্থন থাকলে ।

আমি দুঃখিত যে খেলাটাকে আমি সবচেয়ে বেশি ভালোবাসি সেই খেলা থেকে নিষেধাজ্ঞা পেয়েছি আমি । তবে অনৈতিক প্রস্তাবের ব্যাপারটি আইসিসি আকসুকে না জানানোয় যে শাস্তি হয়েছে তা আমি মাথা পেতে নিচ্ছি । আইসিসি আকসু সবচেয়ে বেশি ভরসা করে ক্রিকেটারদের উপরে ক্রিকেটকে দুর্নীতিমুক্ত রাখার জন্য । কিন্তু এক্ষেত্রে আমি দায়িত্ব পুরোপুরিভাবে পালন করতে পারিনি ।

শতকোটি ভক্ত ও খেলোয়াড়দের মতো আমিও চাই ক্রিকেট থাক দুর্নীতিমুক্ত। তাছাড়া আগামীর তরুণ প্রতিভাবান খেলোয়াড়রা যেনো আমার মতো ভুল না করে সেজন্য আমি আইসিসি আকসুর দুর্নীতিবিষয়ক শিক্ষামূলক কার্যক্রমে সম্পৃক্ত থেকে সর্বাত্মক সহযোগিতা করে যাবো বলে জানিয়েছেন সাকিব ।

ক্রিকেটপ্রেমী ভক্ত সমর্থক, দেশের সব মানুষ, বিসিবি, সরকার থেকে শুরু করে মিডিয়া এতদিন আমাকে যেভাবে সাপোর্ট করে এসেছেন আমার ভালো এবং খারাপ সময়ে আশা করি এই সাপোর্টটা আপনাদের থাকবে। এই সাপোর্টটা যদি থাকে ইনশাল্লাহ খুব শীঘ্রই আমি ক্রিকেটে ফিরতে পারবো এবং আগের থেকে আরো স্ট্রং এবং ভালোভাবে দায়িত্ব পালন করতে পারবো দেশের হয়ে বলে জানিয়েছে সাকিব ।

এর আগে সন্ধ্যায় জুয়াড়ির সঙ্গে কথোপকথন গোপন করার অপরাধে আইসিসি সাকিবের বিরুদ্ধে দুই বছরের নিষেধাজ্ঞা দিয়ে রায় ঘোষণা করেন । তবে ঘোষিত রায়ের এক বছরের শাস্তি স্থগিতও করা হয়েছে । আগামী বছরের ২৯ অক্টোবর থেকে মাঠে ফিরতে পারবেন তিনি যদি একই অপরাধে না জড়ায় ।

দেশের ক্রিকেটের সবচেয়ে বড় তারকা সাকিব আল হাসান সম্পর্কে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা মন্তব্য করে বলেন, ভুল সে করেছে এটা ঠিক এবং সে তা বুঝতে পেরেছে। তারপরও বিসিবি বলেছে, তার (সাকিবের) পাশে তারা থাকবে ।

প্রধানমন্ত্রীর সরকারি বাসভবন গণভবনে আজ (২৯ অক্টোবর) বিকাল চারটায় শুরু হওয়া এই সংবাদ সম্মেলনে শেখ হাসিনা বলেন, “বিসিবি সব সময় সাকিবের সাথে আছে এবং তাকে সব রকমের সহায়তা দিবে । ক্রিকেট প্লেয়ারের সঙ্গে জুয়াড়িরা যখন যোগাযোগ করে… ওর যেটা উচিত ছিলো, যখনই ওর সঙ্গে যোগাযোগ করেছে ও এটাকে বিশেষ গুরুত্ব দেয়নি। সে কথাটা আইসিসিকে জানায়নি ।”

আজারবাইজানের রাজধানী বাকুতে সদ্য সমাপ্ত ১৮তম জোট নিরপেক্ষ সম্মেলন (ন্যাম) নিয়ে সংবাদ সম্মেলনে এক প্রশ্নের জবাবে প্রধানমন্ত্রী আরও বলেন, “আসল নিয়মটা হচ্ছে সঙ্গে সঙ্গে জানানো উচিত ছিলো। সে একটা ভুল করেছে। সেই ক্ষেত্রে আইসিসি যদি কোনো ব্যবস্থা নেয় সেক্ষেত্রে আমাদের তো খুব বেশি করণীয় থাকে না। তবুও বলবো যে, যেহেতু সে আমাদের দেশেরই ছেলে, সারাবিশ্বে প্লেয়ার হিসেবে তার একটা অবস্থান আছে। ভুল সে করেছে এটা ঠিক এবং সে তা বুঝতে পেরেছে। তারপরও বিসিবি বলেছে তার (সাকিবের) পাশে তারা থাকবে। খুব বেশি যে কিছু করার আছে তা নয়।”

তার মতে, “আমরা যেভাবে আমাদের খেলোয়াড়দের সমর্থন দেই, বা বিসিবি যেভাবে সমর্থন দেয় আমার মনে হয় পৃথিবীর খুব কম দেশই আছে এভাবে সমর্থন দেয়। তাদেরকে (খেলোয়াড়দের) আস্তে আস্তে গড়ে তোলা, আমরা (বিষয়টিকে) সেভাবেই নেই। সেভাবেই বাংলাদেশ ক্রিকেট টিম গড়ে উঠেছে এবং আন্তর্জাতিক সম্মানও লাভ করেছে। তাদের খেলার মানও বৃদ্ধি পাচ্ছে।”