শুটিং করতে গিয়ে বিপাকে পড়লেন বলিউড অভিনেত্রী সানি লিওন। টাকা নেওয়ার পর অনুষ্ঠানে না যাওয়ায় তার বিরুদ্ধে প্রতারণার মামলা করা হয়েছে। শনিবার (৬ ফেব্রুয়ারি) এই মামলার তদন্তের জন্য কোচি পুলিশ সানি লিওনের বয়ান রেকর্ড করেছে। সানিকে জিজ্ঞাসাবাদও করা হয়েছে। যদিও তার বয়ান সম্পর্কে কোনো তথ্য প্রকাশ করা হয়নি বলে জানিয়েছে ভারতীয় সংবাদমাধ্যম আনন্দবাজার।

সানি লিওনের বিরুদ্ধে মামলা

ভারতের দক্ষিণ-পশ্চিম কেরালা অঙ্গরাজ্যের একটি বন্দর শহর কোচি। সেখানেই শুটিংয়ের জন্য গিয়েছিলেন সানি লিওন। কিন্তু সেখানে গিয়েও এই অভিনেত্রীকে বিপাকে পড়তে হলো। তারপর আবার সানিকে পুলিশের জেরার মুখেও পড়তে হয়েছে। কিন্তু কেন তাকে এই জেরার মুখে পড়তে হলো?

সানি লিওনের বিরুদ্ধে মামলা

ভারতীয় সংবাদমাধ্যম বলছে, দুটি অনুষ্ঠানের জন্য ২৯ লাখ টাকা নিয়েও সেখানে যাননি সানি লিওন। এমনটাই অভিযোগ তুলেছেন কেরালার বাসিন্দা আর শিয়াস। কোচি পুলিশের কাছে অভিনেত্রীর বিরুদ্ধে আর্থিক প্রতারণার মামলা দায়ের করেছেন তিনি।

সানি লিওনের বিরুদ্ধে মামলা

জানা যায়, বেশ কয়েক দিন আগেই কোচিতে দুটি অনুষ্ঠানে যোগ দেওয়ার জন্য সানিকে ২৯ লাখ টাকা দিয়েছিলেন আয়োজকরা। কিন্তু তিনি ওই অনুষ্ঠানে যোগ দেননি। এরপরই আয়োজকদের পক্ষ থেকে আর শিয়াস নামে কোচি শহরের পেরুম্বাভুরের এক ব্যক্তি পুলিশের কাছে অভিযোগ করেন। সেই অভিযোগের তদন্ত করতেই কোচিতে সানি লিওনকে জিজ্ঞাসাবাদ করেন পুলিশ কর্মকর্তারা।

এদিকে সানি লিওনের ঘনিষ্ঠ এক ব্যক্তি পাল্টা বিবৃতিতে ভারতীয় গণমাধ্যমকে জানিয়েছেন, করোনা মহামারির জন্যই তিনি ওই অনুষ্ঠানে যোগ দেননি। শুধু তাই নয়, অন্তত পাঁচবার অনুষ্ঠান স্থগিত হয়েছে। তাই এর পুরো দায়ই আয়োজকদের। এখানেই শেষ নয়। অনুষ্ঠানের জন্য কখনোই ২৯ লাখ টাকা নেননি। বরং সানি পেয়েছেন ১২ লাখ টাকা, যা তিনি ফেরত দিয়ে দেবেন। কিন্তু এই প্রসঙ্গে সানি লিওনের পক্ষ থেকে সরাসরি কোনো বিবৃতি পাওয়া যায়নি।

সম্প্রতি সানি লিওনকে দেখা গিয়েছিল ওয়েব সিরিজ ‘বুলেট’-এ। দেবাং ঢোলকিয়া পরিচালিত ওই ওয়েব সিরিজটি মুক্তি পেয়েছিল এমএক্স প্লেয়ারে। কিন্তু কোনোভাবেই সেটি দর্শকদের মনে সাড়া ফেলতে পারেননি। এরপর সামনে বিক্রম ভাট পরিচালিত ‘অনামিকা’ ওয়েব সিরিজে দেখা যাবে এই অভিনেত্রীকে।

আমাদের ফেইসবুক Link : ট্রাস্টনিউজ২৪