দিনাজপুর জেলা আইনজীবী সমিতির দুপক্ষের সংঘর্ষের ঘটনায় জেলা আইনজীবী সমিতির সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদকসহ ১৯ জনের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করা হয়েছে। আহত আইনজীবী সারোয়ার আহম্মেদ বাবু বাদী হয়ে শুক্রবার (৫ মার্চ) রাতে কোতোয়ালি থানায় মামলাটি দায়ের করেন।

দিনাজপুর জেলা আইনজীবীদের মধ্যে সংঘর্ষ

এদিকে দিনাজপুর জেলা আইনজীবী সমিতির দুপক্ষের সংঘর্ষে আহত হওয়ার প্রায় ৩০ ঘণ্টার পর হাসপাতালে ভর্তি হয়েছেন সমিতির সদস্য ও জাতীয় সংসদের সংরক্ষিত আসনের নারী এমপি জাকিয়া তাবাসসুম জুঁই।

আসামিরা হলেন- সমিতির সভাপতি অ্যাড. মাজহারুল ইসলাম সরকার, সাধারণ সম্পাদক সাইফুল ইসলাম, শামসুর রহমান পারভেজ, হযরত আলী বেলাল, খয়রাত আলী, মাহফুজুর রহমান বিপুল, মাহফুজ আলী, কবির বিন গোলাম চার্লি, অনিমেষ চন্দ্র রায়, সিফাত রহমান লিমন, আলাল, হেলাল ফারুক, শাওন, আকবর, রাজা, নবী, রবিউল ইসলাম রবি, খোকনসহ ১৯ জনকে। কোতোয়ালি থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোজাফফর হোসেন মামলার বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

দিনাজপুর জেলা আইনজীবীদের মধ্যে সংঘর্ষ

উল্লেখ্য, কমিটির মেয়াদ বৃদ্ধি ও ৬ কোটি টাকার দুর্নীতিসহ নয়টি এজেন্ডা নিয়ে বৃহস্পতিবার (৪ মার্চ) সকাল ১১টায় দিনাজপুর জেলা আইনজীবী সমিতির কার্যকরী কমিটির সাধারণ সভা শুরু হয়। তখন সমিতির সাবেক কমিটির নেতারা সেখানে উপস্থিত হয়ে সভা বন্ধ করতে বলেন। একপর্যায়ে উভয়পক্ষের মধ্যে সংঘর্ষ শুরু হয়। বিকেল ৪টা পর্যন্ত দফায় দফায় সংঘর্ষে কমপক্ষে ১০ জন আহত হয়। পরে পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে।

দিনাজপুর জেলা আইনজীবীদের মধ্যে সংঘর্ষ

সংঘর্ষের ৩০ ঘণ্টা পর শুক্রবার (৫ মার্চ) রাত সাড়ে ৭টার দিকে দিনাজপুর জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি হন এমপি জাকিয়া তাবাসসুম জুঁই। দিনাজপুর জেনারেল হাসপাতালের সিনিয়র কনসালটেন্ট ডা. খতিব শফিউর রহমান জানান, শারীরিক অসুস্থতার কারণে তিনি নিজেই এসে হাসপাতালে শুক্রবার রাত সাড়ে ৭টায় ভর্তি হন। শুক্রবার রাত ১২টায় এমপিকে দেখতে হাসপাতালে যান জেলা আইনজীবী সমিতির সাধারণ সম্পাদক সাইফুল ইসলাম।

দিনাজপুর জেলা আইনজীবীদের মধ্যে সংঘর্ষ

এ সময় তিনি জানান, বৃহস্পতিবার আইনজীবী সমিতির সামনের সংঘর্ষে তিনি মাথায় আঘাত পেয়েছেন। তাৎক্ষণিক বিষয়টি টের না পেলেও সময় বাড়ার সঙ্গে সঙ্গে তিনি মাথায় প্রচণ্ড ব্যথা অনুভব করতে থাকেন।

শনিবার সকালে হাসপাতালের সিনিয়র কনসালটেন্ট ডা. খতিব শফিউর রহমান জানান, বর্তমানে তার শারীরিক অবস্থা ভালো। তবে ঘাড়ের পেছনে এবং বাম পায়ে সামান্য আঘাত পেয়েছেন। এক্সরে করা হয়েছে। সিটি-স্ক্যান করা হবে। তার পরিবারের সদস্যরা আরো চেকআপ এবং চিকিংসার জন্য ঢাকায় নিয়ে যাচ্ছেন।

আমাদের ফেইসবুক Link : ট্রাস্টনিউজ২৪