তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি প্রতিমন্ত্রী জুনায়েদ আহমেদ পলক বলেন, ফেসবুক মাধ্যম ব্যবহার করে ব্যবসা করতে ট্রেড লাইসেন্স নেয়া বাধ্যমূলক করার মতো কঠিন সিদ্ধান্ত নেয়া ঠিক হবে না। তবে অন্য কোনো পরিকল্পনার মাধ্যমে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ব্যবহার করে পরিচালিত ব্যবসাগুলোর তথ্যভাণ্ডার তৈরি করা জরুরি।

ফেসবুকে অনলাইন ব্যবসার ট্রেড লাইসেন্স

সম্প্রতি ফেসবুক ব্যবসা করতে ট্রেড লাইসেন্স বাধ্যমূলক করা শীর্ষক বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ের পরিকল্পনার ব্যাপারে এমন অভিমত জানিয়েছেন প্রতিমন্ত্রী।

তিনি জানান, শুধু যোগাযোগই নয়, ইন্টারনেট দুনিয়ার ফেসবুকসহ অন্যান্য সামাজিক মাধ্যমগুলো এখন ক্ষুদ্র ব্যবসায়ীদের জন্য উপার্জনের অন্যতম মাধ্যমও। ই-কমার্স অ্যাসোসিয়েশন অব বাংলাদেশ-ইক্যাব এর তথ্য অনুযায়ী দেশে ৫ লাখেরও বেশি ক্ষুদ্র ব্যবসায়ী ফেসবুকসহ অন্যান্য সামাজিক মাধ্যম ব্যবহার করে ব্যবসা করছেন।

আইসিটি প্রতিমন্ত্রীর মতে, খুব অল্প সময় ধরে চালু হওয়া ফেসবুক ব্যবসার সংস্কৃতিকে এখনই কঠিন বিধির আওতায় নেয়া ঠিক হবে না। লেনদেনে স্বচ্ছতা আনতে এবার ফেসবুকে ব্যবসার ক্ষেত্রে ট্রেড লাইসেন্স বাধ্যতামূলক করার কথা ভাবছে বাণিজ্য মন্ত্রণালয়। বিষয়টি নিয়ে দেখা দিয়েছে মিশ্র প্রতিক্রিয়া।

জাতিসংঘের ক্যাপিটাল ডেভেলপমেন্ট ফান্ড-ইউনএনসিডিএফ মতে, প্রক্রিয়াটিকে সহজীকরণের কথা ভাবতে হবে সরকারকে। ফেসবুকভিত্তিক প্রায় ৫ লাখ ই-কমার্সকে ট্রেড লাইসেন্স ফিসহ অন্যান্য ভ্যাট ও ট্যাক্স বাবদ বছরে গুণতে হবে প্রায় চার হাজার টাকা। এতে সরকারের আয় হবে প্রায় ২শ কোটি টাকা।

আমাদের ফেইসবুক Link : ট্রাস্টনিউজ২৪