দিনাজপুরের ঘোড়াঘাট সরকারি কলেজে অধ্যক্ষ নিয়োগ অবৈধ ঘোষনা সুপ্রিম কোর্টের রায়। জানা যায়, গত ২০১২ ইং সালে বর্তমান অধ্যক্ষ মনিরুল ইসলাম ঘোড়াঘাট উপজেলার দেওগাঁ রহমানিয়া ফাজিল (ডিগ্রি) মাদ্রাসায় বাংলা প্রভাষক ছিলেন।

ঘোড়াঘাট সরকারি কলেজ

পরে বিভিন্ন দপ্তরে তদবীর করে ঘোড়াঘাট সরকারি কলেজে অধ্যক্ষ হিসেবে নিয়োগ পান। পরবর্তীতে উক্ত কলেজের সমাজ বিজ্ঞান শিক্ষক মোরশেদ আলম শেখ ২০১৪ইং সালে উক্ত কলেজের অধ্যক্ষ মোঃ মনিরুল ইসলামের বিরুদ্ধে নিয়োগ অবৈধ মর্মে হাইকোর্টে রিট পিটিশন করেন। যার নং ৩৯৬৭/২০১৪ ইং।

পিটিশনে উল্লেখ করা হয় যে, জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের বিধি মোতাবেক ডিগ্রি কলেজের অধ্যক্ষ পদের জন্য ডিগ্রি কলেজ পর্যায়ে কমপক্ষে ১০ বছরের শিক্ষকতার অভিজ্ঞতা থাকতে হবে। বিধি উপেক্ষা করে মাদ্রাসার অভিজ্ঞতা দিয়ে অধ্যক্ষ পদে মনিরুল ইসলাম যোগদান করেন। যার কারনে হাইকোর্ট গত ০৯ই মার্চ ২০১৬ ইং সালে অধ্যক্ষ নিয়োগ বিধি সম্মত না হওয়ায় উক্ত নিয়োগ অবৈধ মর্মে রায় প্রদান করেন। বর্তমান অধ্যক্ষ মনিরুল ইসলাম উক্ত রায়ের বিরুদ্ধে ২০১৭ইং সালে সুপ্রিম কোর্টে আপিল বিভাগে আপিল করেন। যার নং ৩৯৪/২০১৭ইং। উক্ত আপিলে প্রধান বিচারপতি সহ তিনজন বিচারপতির সমন্বয়ে গঠিত বেঞ্চ গত ১৬/১১/২০২০ইং তারিখে অধ্যক্ষ কর্তৃক দায়েরকৃত আপিলটি খারিজ করে দিয়ে পূর্বের হাইকোর্টের রায় বহাল রেখে আদেশ প্রদান করেন।

আমাদের ফেইসবুক Link : ট্রাস্টনিউজ২৪