এছাড়া গত ২৪ ঘন্টায় নতুন ৭ জনসহ এ পর্যন্ত ৩৪২০ জন সুস্থ হয়েছেন। তবে আক্রান্ত ৩৫৫৭ জনের মধ্যে ৩৪২০ জন সুস্থ ও ৭৬ জনের মৃত্যু হওয়ায় বর্তমানে দিনাজপুর জেলায় করোনায় আক্রান্ত রোগির সংখ্যা রয়েছে মাত্র ৬১ জন। দিনাজপুর সিভিল সার্জন ডা. মো. আব্দুল কুদ্দুছ জানান, বুধবার (২১ অক্টোবর) দুপুর ১২টা পর্যন্ত আগের ২৪ ঘন্টায় ৫৯টি নমুনা পরীক্ষা করা হয়েছে। এর মধ্যে ১১ জনের দেহে করোনা পজিটিভ শনাক্ত হয়েছে। এ নিয়ে জেলায় করোনায় আক্রান্ত রোগির সংখ্যা দাড়িয়েছে ৩৫৫৭ জনে। একই সময়ে নতুন ৭ জনসহ এ পর্যন্ত ৩৪২০ জন সুস্থ হয়েছেন। আর এ পর্যন্ত ৭৬ জনের মৃত্যু হয়েছে। নতুন আক্রান্ত ১১ জনের মধ্যে সদর উপজেলাতে ৯ জন, বীরগঞ্জে একজন ও চিরিরবন্দ উপজেলায় একজন। বুধবার আক্রান্তের হার ছিল ১৮ দশমিক ৬৪ শতাংশ।

জেলায় আক্রান্ত ৩৫৫৭ জনের মধ্যে সদর উপজেলাতে সবচেয়ে বেশী ১৭২৮ জন। এছাড়া বিরলে ২৩৬ জন, বিরামপুরে ২৮৭ জন, বীরগঞ্জে ১১৪ জন, বোচাগঞ্জে ১০২ জন, চিরিরবন্দরে ১৬৬ জন, ফুলবাড়ীতে ১৩২ জন, ঘোড়াঘাটে ৮৩ জন, হাকিমপুরে ৮৩ জন, কাহারোলে ১১৯ জন, খানসামায় ৮০ জন, নবাবগঞ্জে ১০৯ জন ও পার্বতীপুর উপজেলায় ৩১৮ জন। সিভিল সার্জন ডা. মো. আব্দুল কুদ্দুছ জানান, জেলায় এ পর্যন্ত করোনায় আক্রান্ত হয়ে ৭৬ জনের মৃত্যু হয়েছে। এর মধ্যে সদর উপজেলায় ২৭ জন, বিরলে ৬ জন, বিরামপুরে ৫ জন, বীরগঞ্জে ৩ জন, বোচাগঞ্জে ৩ জন, চিরিরবন্দরে ৯ জন, ফুলবাড়ীতে ৮ জন, হাকিমপুরে একজন, কাহারোলে ৫ জন, খানসামায় দুইজন, নবাবগঞ্জে দুইজন ও পার্বতীপুর উপজেলায় ৫ জন। জেলার ১৩টি উপজেলার মধ্যে ঘোড়াঘাট উপজেলায় এখন পর্যন্ত কারো মৃত্যু হয়নি।

তিনি আরো জানান, গত ২৪ ঘন্টায় ৭১টি নমুনাসহ এ পর্যন্ত ২১৫২২টি নমুনা সংগ্রহ করা হয়েছে। গত ২৪ ঘন্টায় ৫৯টি এ পর্যন্ত ২১০৪০টি নমুনা পরীক্ষা করা হয়েছে। আর গত ২৪ ঘন্টায় ৩৮ জনসহ এ পর্যন্ত ২৫০৯৯ জনকে কোয়ান্টোইনে নেয়া হয়েছে। বর্তমানে হোম আইসোলেশনে রয়েছেন ৪৮ জন ও ১৩ জন হাসপাতালে ভর্তি রয়েছেন বলে জানান সিভিল সার্জন ডা. মো. আব্দুল কুদ্দুছ।