দিনাজপুরে গত ২৪ ঘন্টায় নতুন ১৩ জনসহ এ পর্যন্ত ৩৭৭৮ জন করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন। একই সময়ে নতুন ৪ জনসহ এ পর্যন্ত ৩৫৭২ জন সুস্থ হয়েছেন। আর করোনায় আক্রান্ত হয়ে এ পর্যন্ত ৮২ জনের মৃত্যু হয়েছে। তবে আক্রান্ত ৩৭৭৮ জনের মধ্যে ৩৫৭২ জন সুস্থ ও ৮২ জনের মৃত্যু হওয়ায় বর্তমানে দিনাজপুর জেলায় করোনায় আক্রান্ত রোগির সংখ্যা রয়েছে ১২৪ জন।

দিনাজপুর সিভিল সার্জন ডা. মো. আব্দুল কুদ্দুছ জানান, বুধবার (১১ নভেম্বর) দুপুর ১২টা পর্যন্ত আগের ২৪ ঘন্টায় ১০২টি নমুনা পরীক্ষা করা হয়েছে। এর মধ্যে ১৩ জনের দেহে করোনা পজিটিভ শনাক্ত হয়েছে। এ নিয়ে জেলায় করোনায় আক্রান্ত রোগির সংখ্যা দাড়িয়েছে ৩৭৭৮ জনে। একই সময়ে নতুন ৪ জনসহ এ পর্যন্ত ৩৫৭২ জন সুস্থ হয়েছেন। আর এ পর্যন্ত ৮২ জনের মৃত্যু হয়েছে। নতুন আক্রান্ত ১৩ জনের মধ্যে সদর উপজেলাতে ৭ জন, বিরামপুর একজন, ঘোড়াঘাটে একজন, কাহারোলে ৩ জন ও পার্বতীপুর উপজেলায় একজন। বুধবার আক্রান্তের হার ছিল ১২ দশমিক ৭৪ শতাংশ।

জেলায় আক্রান্ত ৩৭৭৮ জনের মধ্যে সদর উপজেলাতে সবচেয়ে বেশী ১৮৭৫ জন। এছাড়া বিরলে ২৪৫ জন, বিরামপুরে ২৯৭ জন, বীরগঞ্জে ১১৬ জন, বোচাগঞ্জে ১০৬ জন, চিরিরবন্দরে ১৭৬ জন, ফুলবাড়ীতে ১৩৬ জন, ঘোড়াঘাটে ৮৪ জন, হাকিমপুরে ৮৩ জন, কাহারোলে ১৩১ জন, খানসামায় ৮৬ জন, নবাবগঞ্জে ১১২ জন ও পার্বতীপুর উপজেলায় ৩৩১ জন।

সিভিল সার্জন ডা. মো. আব্দুল কুদ্দুছ জানান, জেলায় এ পর্যন্ত করোনায় আক্রান্ত হয়ে ৮২ জনের মৃত্যু হয়েছে। এর মধ্যে সদর উপজেলায় ৩১ জন, বিরলে ৬ জন, বিরামপুরে ৫ জন, বীরগঞ্জে ৩ জন, বোচাগঞ্জে ৩ জন, চিরিরবন্দরে ৯ জন, ফুলবাড়ীতে ৮ জন, হাকিমপুরে একজন, কাহারোলে ৫ জন, খানসামায় ৩ জন, নবাবগঞ্জে দুইজন ও পার্বতীপুর উপজেলায় ৬ জন। জেলার ১৩টি উপজেলার মধ্যে ঘোড়াঘাট উপজেলায় এখন পর্যন্ত কারো মৃত্যু হয়নি। তিনি আরো জানান, গত ২৪ ঘন্টায় ৯৫টি নমুনাসহ এ পর্যন্ত ২৩৬৩৬টি নমুনা সংগ্রহ করা হয়েছে। গত ২৪ ঘন্টায় ১০২টি এ পর্যন্ত ২৩০০২টি নমুনা পরীক্ষা করা হয়েছে। আর গত ২৪ ঘন্টায় ৫৪ জনসহ এ পর্যন্ত ২৫৯৪০ জনকে কোয়ান্টোইনে নেয়া হয়েছে। বর্তমানে হোম আইসোলেশনে রয়েছেন ৮৪ জন ও ৪০ জন হাসপাতালে ভর্তি রয়েছেন বলে জানান সিভিল সার্জন ডা. মো. আব্দুল কুদ্দুছ।