দিনাজপুরে গত ২৪ ঘন্টায় নতুন ২৩ জন করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন। এ নিয়ে জেলায় এ পর্যন্ত ৩৯৪৪ জন আক্রান্ত হয়েছেন। একই সময়ে নতুন ১৬ জনসহ এ পর্যন্ত ৩৬৮৭ জন সুস্থ হয়েছেন। আর এ পর্যন্ত ৮৬ জনের মৃত্যু হয়েছে। তবে আক্রান্ত ৩৯৪৪ জনের মধ্যে ৩৬৮৭ জন সুস্থ ও ৮৬ জনের মৃত্যু হওয়ায় বর্তমানে দিনাজপুর জেলায় করোনায় আক্রান্ত রোগির সংখ্যা রয়েছে ১৭১ জন। দিনাজপুর সিভিল সার্জন ডা. মো. আব্দুল কুদ্দুছ জানান, মঙ্গলবার (২৪ নভেম্বর) দুপুর ১২টা পর্যন্ত আগের ২৪ ঘন্টায় ১০৬টি নমুনা পরীক্ষা করা হয়েছে। এর মধ্যে ২৩ জনের দেহে করোনা পজিটিভ শনাক্ত হয়েছে। এ নিয়ে জেলায় করোনায় আক্রান্ত রোগির সংখ্যা দাড়িয়েছে ৩৯৪৪ জনে। একই সময়ে নতুন ১৬ জনসহ এ পর্যন্ত ৩৬৮৭ জন সুস্থ হয়েছেন। এ পর্যন্ত জেলায় ৮৬ জনের মৃত্যু হয়েছে। নতুন আক্রান্ত ২৩ জনের মধ্যে সদর উপজেলাতেই ১০ জন। এছাড়া বিরলে ৫ জন, বিরামপুরে দুইজন, বীরগঞ্জে একজন, বোচাগঞ্জে একজন, ও খানসামা উপজেলায় ৪ জন। মঙ্গলবার আক্রান্তের হার ছিল ২১ দশমিক ৬ শতাংশ।

জেলায় আক্রান্ত ৩৯৪৪ জনের মধ্যে সদর উপজেলাতে সবচেয়ে বেশী ১৯৭৩জন। এছাড়া বিরলে ২৫৬ জন, বিরামপুরে ৩০৩ জন, বীরগঞ্জে ১২১ জন, বোচাগঞ্জে ১১১ জন, চিরিরবন্দরে ১৮৪ জন, ফুলবাড়ীতে ১৪১ জন, ঘোড়াঘাটে ৮৪ জন, হাকিমপুরে ৮৩ জন, কাহারোলে ১৩৯ জন, খানসামায় ৯৪ জন, নবাবগঞ্জে ১২০ জন ও পার্বতীপুর উপজেলায় ৩৩৫ জন। সিভিল সার্জন ডা. মো. আব্দুল কুদ্দুছ জানান, জেলায় এ পর্যন্ত করোনায় আক্রান্ত হয়ে ৮৬ জনের মৃত্যু হয়েছে। এর মধ্যে সদর উপজেলায় ৩৪ জন, বিরলে ৬ জন, বিরামপুরে ৫ জন, বীরগঞ্জে ৩ জন, বোচাগঞ্জে ৩ জন, চিরিরবন্দরে ১০ জন, ফুলবাড়ীতে ৮ জন, হাকিমপুরে একজন, কাহারোলে ৫ জন, খানসামায় ৩ জন, নবাবগঞ্জে দুইজন ও পার্বতীপুর উপজেলায় ৬ জন। জেলার ১৩টি উপজেলার মধ্যে ঘোড়াঘাট উপজেলায় এখন পর্যন্ত কারো মৃত্যু হয়নি।

তিনি আরো জানান, গত ২৪ ঘন্টায় ১১৫টি নমুনাসহ এ পর্যন্ত ২৪৯৯৩টি নমুনা সংগ্রহ করা হয়েছে। গত ২৪ ঘন্টায় ১০৬টি এ পর্যন্ত ২৪২৪৫টি নমুনা পরীক্ষা করা হয়েছে। আর গত ২৪ ঘন্টায় ৯৫ জনসহ এ পর্যন্ত ২৬৬০৯ জনকে কোয়ান্টোইনে নেয়া হয়েছে। গত ২৪ ঘন্টায় ১০৪ জনসহ কোয়ারেন্টাইন হতে ছাড় পেয়েছে ২৫৩৫৮ জন। বর্তমানে হোম আইসোলেশনে রয়েছেন ১৫০ জন ও ২১ জন হাসপাতালে ভর্তি রয়েছেন বলে জানান সিভিল সার্জন ডা. মো. আব্দুল কুদ্দুছ।