বঙ্গোপসাগরে মালয়েশিয়াগামী ট্রলারডুবি, ১৪ রোহিঙ্গার লাশ উদ্ধার

অবৈধভাবে মালয়েশিয়া যাওয়ার পথে সেন্টমার্টিন দ্বীপের পশ্চিমে বঙ্গোপসাগরে একটি ট্রলার ডুবে গেছে। এ ঘটনায় ১৪ রোহিঙ্গার মরদেহ উদ্ধার করা হয়েছে।

বঙ্গোপসাগরে মালয়েশিয়াগামী ট্রলারডুবি, ১৪ রোহিঙ্গার লাশ উদ্ধার
বঙ্গোপসাগরে মালয়েশিয়াগামী ট্রলারডুবি, ১৪ রোহিঙ্গার লাশ উদ্ধার


অবৈধভাবে মালয়েশিয়া যাওয়ার পথে সেন্টমার্টিন দ্বীপের পশ্চিমে বঙ্গোপসাগরে একটি ট্রলার ডুবে গেছে। এ ঘটনায় ১৪ রোহিঙ্গার মরদেহ উদ্ধার করা হয়েছে।

এছাড়া আরও ৬২ রোহিঙ্গাকে জীবিত উদ্ধার করা হয়েছে। মঙ্গলবার সকাল ৭টার দিকে কক্সবাজারের টেকনাফ উপজেলায় সেন্টমার্টিন দ্বীপের পশ্চিমে বঙ্গোপসাগরে এ দুর্ঘটনা ঘটে। এই প্রতিবেদন লেখা পর্যন্ত কোস্টগার্ডের তিনটি দল, সেন্ট মার্টিন বোট মালিক সমিতি, বর্ডার গার্ড বাংলাদেশসহ (বিজিবি) বিভিন্ন আইন প্রয়োগকারী সংস্থার সদস্যা উদ্ধার অভিযান চালাচ্ছেন বলে জানা গেছে।

উদ্ধার হওয়া রোহিঙ্গারা জানান, সোমবার রাতে দালালদের মাধ্যমে রোহিঙ্গা শরণার্থীশিবির থেকে টেকনাফ উপকূল দিয়ে দুটি ট্রলার মালয়েশিয়ার উদ্দেশে রওনা হয়। মঙ্গলবার সকাল ৭টার দিকে সাগরের পাথরের সঙ্গে ধাক্কা খেয়ে একটি ট্রলার ডুবে যায়।

সেন্টমার্টিন পুলিশ ফাঁড়ির ইনচার্জ এসআই আজমীর জানান, ট্রলারটি ৭০ রোহিঙ্গা ও ১০ বাংলাদেশিকে নিয়ে অবৈধভাবে মালয়েশিয়া যাচ্ছিল। সকাল ৭টার দিকে সেন্টমার্টিন দ্বীপের পশ্চিমে গভীর সমুদ্রে ট্রলারটি ডুবে যায়। এ ঘটনায় ১৪ রোহিঙ্গার মরদেহ উদ্ধার করা হয়েছে। এছাড়া আরও ৬২ রোহিঙ্গাকে জীবিত উদ্ধার করা হয়েছে | তবে এখনও বেশ কয়েকজন নিখোঁজ রয়েছেন। তাদের উদ্ধারে ঘটনাস্থলে এখনও অভিযান চলছে বলে জানান পুলিশের ওই কর্মকর্তা।