রংপুরে বেড়েছে সব ধরনের চালের দাম, বিপাকে ক্রেতারা

রংপুরে খুচরা ও পাইকারি বাজারে বেড়েছে সব ধরনের চালের দাম। এতে বিপাকে পড়েছেন ক্রেতারা। পাইকারি পর্যায়ে প্রকারভেদে মোটা ও চিকন চালে কেজি প্রতি এক টাকা থেকে চার টাকা পর্যন্ত দাম বেড়েছে।

রংপুরে বেড়েছে সব ধরনের চালের দাম, বিপাকে ক্রেতারা
রংপুরে বেড়েছে সব ধরনের চালের দাম, বিপাকে ক্রেতারা


রংপুরে খুচরা ও পাইকারি বাজারে বেড়েছে সব ধরনের চালের দাম। এতে বিপাকে পড়েছেন ক্রেতারা। পাইকারি পর্যায়ে প্রকারভেদে মোটা ও চিকন চালে কেজি প্রতি এক টাকা থেকে চার টাকা পর্যন্ত দাম বেড়েছে। খুচরা পর্যায়ে তা বেড়েছে আরো বেশি। গেলো এক সপ্তাহে জেলার সবচেয়ে বড় পাইকারি চালের আড়ৎ মাহিগঞ্জ ও বড় বাজার সিটি বাজারে এক টাকা বেড়ে প্রতিকেজি গুটি স্বর্ণা পাইকারি বিক্রি হচ্ছে ২৬ টাকায়। স্বর্ণা ২৭ থেকে বেড়ে ২৯, আটাশের চাল ৩১ থেকে বেড়ে ৩৪ টাকা কেজি দরে বিক্রি হচ্ছে।

অন্যদিকে, চিকন চাল মিনিকেটের দাম প্রতিকেজিতে ৪০ টাকা বেড়ে ৪৫ টাকায় এবং নাজির শাইল ৫১ থেকে বেড়ে ৫৪ টাকা কেজি দরে বিক্রি হচ্ছে। ব্যবসায়ীদের দাবি, মিলারদের কাছ থেকে বেশি দামে কেনায় স্বাভাবিকভাবেই কিছুটা বেড়েছে সবধরনের চালের দাম। 

একজন ক্রেতা বলেন, দাম বেশি রাখে, তার কোনো কারণ নেই। তবে জানতে চাইলে বলে, আমরা বেশি দামি ক্রয় করার কারণে একটু বেশি দামেই বিক্রি করতে হয়। এদিকে এক চাল বিক্রেতা বলেন, চাল সব মিলারদের গোডাউনে আছে। চালের বাজার নিয়ন্ত্রণ করে মিলাররা। এখানে আমাদের কোন হাত নেই।