জয়পুরহাটে খাতিজা খাতুন (১৩) নামে এক কিশোরীকে ধর্ষণের অভিযোগে দায়েরকৃত মামলায় মাসুদ রানা নামে এক ব্যক্তিকে ৪০ বছরের কারাদণ্ডাদেশ দিয়েছেন আদালত। এছাড়াও তাকে দুই লাখ টাকা জরিমানা, অনাদায়ে আরও দুবছরের সশ্রম কারাদণ্ড দিয়েছেন নারী ও শিশু নির্যাতন ট্রাইব্যুনালের বিচারক মো. রুস্তম আলী। (১৪ জানুয়ারি) দুপুরে আসামি পলাতক থাকায় তার অনুপস্থিতিতেই এ রায় দেন বিচারক। দণ্ডপ্রাপ্ত আসামি হলেন, জয়পুরহাট সদরের হরিপুর উত্তর পাড়া গ্রামের তাজিম উদ্দীনের ছেলে মাসুদ রানা (৩৬)।

পাটক্ষেতে ধর্ষিত কিশোরীর আত্মহত্যা

আদালত সূত্রে জানা গেছে, ২০১২ সালের ৩০ জুন দুপুরে জয়পুরহাট সদরের হরিপুর উত্তর পাড়া গ্রামের হেলাল উদ্দীনের মেয়ে খাতিজা প্রকৃতির ডাকে সাড়া দিতে বাড়ির পাশের একটি পাটক্ষেতে যায়। এ সময় মাসুদ তাকে জোরপূর্বক ধর্ষণ করেন। এ ঘটনার পর খাতিজা ২ জুলাই বিষ পান করলে তাকে হাসপাতালে নেওয়ার পর কর্তব্যরত চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করেন।

এ বিষয়ে নিহতের বাবা হেলাল উদ্দীন বাদী হয়ে ৩ জুলাই জয়পুরহাট থানায় মামলা দায়ের করলে পুলিশ দীর্ঘ তদন্ত শেষে ওই বছরই ১৮ নভেম্বর আদালতে অভিযোগপত্র দাখিল করে। সাত স্বাক্ষীর জবানবন্দি শেষে বিচারক এ রায় দেন। এ বিষয়ে জয়পুরহাটের সিনিয়র আইনজীবী নন্দ কিশোর আগরওয়ালা জানান, মামলা দায়েরের পর থেকেই আসামি পলাতক। তবে আদালতের রায়ে সন্তোষ প্রকাশ করেছেন নিহতের স্বজনরা।

আমাদের ফেইসবুক Link: ট্রাস্টনিউজ২৪