হবিগঞ্জের বানিয়াচংয়ের বিথঙ্গলে এক ছাত্রীকে ধর্ষণের অভিযোগে প্রাইভেট শিক্ষক ও তার সহযোগীকে আটক করেছে পুলিশ। গতকাল বুধবার রাত ১১ টার দিকে বিথঙ্গল পুলিশ ফাঁড়ির ইনচার্জ জাকির হোসেনের নেতৃত্বে একদল পুলিশ অভিযান চালিয়ে তাদের আটক করে। আটককৃতরা হলো প্রাইভেট শিক্ষক সোহেল মিয়া ও তার সহযোগী আইয়ূব আলী।

ধর্ষণের অভিযোগে শিক্ষক ও তার সহযোগী আটক

পুলিশ সূত্র জানায়, প্রাইভেট পড়ানোর সুবাদে সোহেল মিয়া মেয়েটির সাথে প্রেমের সম্পর্ক গড়ে তুলে। গত মাসে বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে মেয়েটিকে সোহেল মিয়া ১ম দফা ধর্ষণ করে। বুধবার রাত ৮টার দিকে সোহেল মিয়া মেয়েটিকে তার বাড়ির পাশের হাওরে নিয়ে ধর্ষণ করে বাড়িতে চলে যায়। রাত ১০ টার দিকে মেয়েটি স্থানীয় পুলিশ ফাঁড়ির গিয়ে অভিযোগ দেয়। পরে পুলিশ অভিযান চালিয়ে সোহেল মিয়া ও তার সহযোগীকে আটক করা হয়। আজ দুপুরে আটককৃতদেরকে আদালতে প্রেরণ করা হয়।

এ ব্যাপারে বানিয়াচং থানার ওসি এমরান হোসেন জানান, প্রেমের সম্পর্ক থেকে এ ঘটনা ঘটেছে। আমরা অভিযোগের প্রেক্ষিতে শিক্ষক ও তার সহযোগীকে আটক করে আদালতে প্রেরণ করলে আদালত তাদের কারাগারে পাঠানোর নির্দেশ দেয়। এ ঘটনায় মেয়েটির বাবা বানিয়াচং থানায় একটি ধর্ষণ মামলা দায়ের করেছেন।

আমাদের ফেইসবুক Link : ট্রাস্টনিউজ২৪