পরকীয়া দেখে ফেলায় শাশুড়িকে গলাকেটে হত্যার অভিযোগ উঠেছে পুত্রবধূর বিরুদ্ধে। ঘটনাটি ঘটেছে চাঁপাইনবাবগঞ্জের শিবগঞ্জ পৌর এলাকার কুমারপাড়া-বাবুপাড়ায়। এ ঘটনায় নিহতের পুত্রবধূ ও তার প্রেমিককে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।

পরকীয়া দেখে ফেলায় শাশুড়িকে গলাকেটে হত্য

জানা গেছে, নিহত নারীর নাম যমুনা পাল। গ্রেফতার দু’জন হলেন- যমুনা পালের পুত্রবধূ পলি রানী পাল ও তার কথিত প্রেমিক মেহেদী হাসান। মেহেদি সদর উপজেলার গোবরাতলা মহিপুরের গুলজার হোসেনের ছেলে।
বুধবার রাতে শিবগঞ্জ থানার ওসি ফরিদ হোসেন গ্রেফতারের বিষয়টি গণমাধ্যমকে নিশ্চিত করেছেন।

তিনি জানান, শাশুড়ি যমুনা পালকে গলাকেটে হত্যার ঘটনায় দু’জনকে গ্রেফতার করা হয়েছে। এদের মধ্যে পুত্রবধূ পলি রানী পাল হত্যাকাণ্ডে জড়িত থাকার কথা প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে স্বীকার করেছেন। পরকীয়া দেখে ফেলায় এ হত্যার ঘটনা ঘটেছে বলে তথ্য পাওয়া গেছে।

অন্যদিকে গ্রেফতার মেহেদীকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য বুধবার বিকালে রিমান্ডে নেওয়া হয়েছে। প্রসঙ্গত, ৩ মার্চ দিবাগত রাতে শিবগঞ্জ পৌর এলাকার কুমারপাড়া-বাবুপাড়ার একটি ভাড়াবাসায় ওই নারীকে গলাকেটে হত্যা করা হয়।

পরদিন ৪ মার্চ বৃহস্পতিবার ভোরে লাশ উদ্ধার করে পুলিশ। এ ঘটনায় ৫ মার্চ নিহতের ভাই কবির বাদী হয়ে শিবগঞ্জ থানায় একটি হত্যা মামলা করেন।

পরে তদন্ত করে জানা যায়- শাশুড়ি তার পুত্রবধূর পরকীয়া দেখে ফেলায় এ হত্যার ঘটনা ঘটেছে। জানা যায়, যমুনা পালের ছেলে পেশায় স্বর্ণকার। ব্যবসায় ক্ষতিগ্রস্ত হয়ে ধার দেনা করে তিনি পালিয়ে রাজশাহীতে অবস্থান করছেন।

আমাদের ফেইসবুক Link : ট্রাস্টনিউজ২৪