বিশ্বের তেল উৎপাদন ১লা মে থেকে রেকর্ড পরিমাণে কমানো হবে: করোনাভাইরাস

World oil production will be cut by record volume from 1st May: Coronavirus

বিশ্বের তেল উৎপাদন ১লা মে থেকে রেকর্ড পরিমাণে কমানো হবে: করোনাভাইরাস
বিশ্বের তেল উৎপাদন ১লা মে থেকে রেকর্ড পরিমাণে কমানো হবে: করোনাভাইরাস

করোনাভাইরাসের কারণে বিশ্ব জুড়ে লকডাউন পরিস্থিতির করণে জ্বালানি তেলের চাহিদা ও দাম কমে যাওয়ায় বিশ্বের তেল রপ্তানিকারক দেশগুলোর সংগঠন ওপেক এবং রাশিয়াসহ এর সহযোগী দেশসমূহ উৎপাদন ১০ শতাংশ কমিয়ে আনতে একমত হয়েছে।
এ যাবৎকালে তেলের উৎপাদন কমানোর এটিই সর্বোচ্চ রেকর্ড। পয়লা মে থেকে এটি কার্যকর হবে। রবিবারে  এক ভিডিও কনফারেন্সে আলোচনার পর এ চুক্তি নেয়া হয়।

এখন কেবল এটুকু নিশ্চিত করা করা হয়েছে যে, ওপেক ও এর সহযোগী দেশগুলো তেলের উৎপাদন দিনে ৯৭ লক্ষ ব্যারেল কমিয়ে দেবে। এদিকে, সোমবার এশিয়ার বাজারে তেলের মূল্য ব্যারেল প্রতি এক ডলার করে বেড়েছে। মার্কিন বাজারে ব্যারেল প্রতি ২৪.১৫ ডলারে উঠেছে দাম।

যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প এবং কুয়েতের জ্বালানি মন্ত্রী ডা. খালেদ আলী মোহাম্মেদ আল-ফাদহেল টুইট করে চুক্তির ব্যাপারে জানিয়েছেন।
ডা. আল-ফাদহেলে টুইটে বলা হয়েছে, আল্লাহর অসীম রহমতে শুক্রবার রাত থেকে চলা আলোচনার পরে, আমরা এখন এক ঐতিহাসিক চুক্তিতে সম্মত হয়েছি। আগামী মে মাসের প্রথম দিন থেকে ওপেক প্লাসভুক্ত দেশগুলো দৈনিক প্রায় এক কোটি ব্যারেল কম তেল উৎপাদন করবে।

অন্যদিকে, সৌদি জ্বালানি মন্ত্রণালয় এবং রাশিয়ার রাষ্ট্রীয় সংবাদ সংস্থা তাস রোববার ভিন্ন ভিন্নভাবে চুক্তির খবর নিশ্চিত করেছে।
করোনাভাইরাস মহামারি আকারে দেখা দেবার ফলে সারা বিশ্বে ৩০০ কোটির বেশি মানুষ লকডাউনে থাকায় গত কয়েকমাসে জ্বালানি তেলের চাহিদা এক তৃতীয়াংশ হ্রাস পেয়েছে।